রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ১২:০৪ অপরাহ্ন


Bd-Times

ক্যাম্পাস এক্সক্লুসিভ

  Print  

তীব্র যানজটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের নাভিশ্বাস

    জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিট-৩ ভর্তি পরিক্ষা সম্পন্ন


জবি সংবাদদাতা | প্রকাশিত: ০৯:২৪ পিএম, শনিবার, ১৪ - সেপ্টেম্বর - ২০১৯



উচ্চ মাধ্যমিকের গন্ডি পেরিয়ে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর স্বপ্ন থাকে দেশের সর্বোচ্চ শিক্ষাকেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়ে উচ্চ শিক্ষা সম্পন্ন করার। কিন্তু সেই স্বপ্ন পুরনে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে তীব্র ট্রাফিক জ্যাম ও কাঠফাঁটা আবহাওয়া। গতকাল শনিবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাণিজ্য অনুষদ (ইউনিট-৩) এর ভর্তি পরিক্ষা উপলক্ষে সকাল থেকেই শিক্ষার্থীরা পুরান ঢাকায় আসতে শুরু করে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আসতে সদরঘাটমুখী বাসে ছিল উপচেপড়া ভিড়। বিশেষ করে পল্টন, গুলিস্তান ও পুরান ঢাকার বংশাল থেকে সদরঘাট পর্যন্ত বাড়তি যানবাহনের চাপ দেখা যায়। তিন কিলোমিটার রাস্তা পার হতে লেগেছে ২ থেকে ৪ ঘন্টা। এসময় কয়েক হাজার শিক্ষার্থী গুলিস্তান থেকে পায়ে হেটেই জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের দিকে যাত্রা করে। পরীক্ষার প্রথম শিফটে সকাল ১০টা থেকে শুরু হওয়ার আগে সকাল ৮টা থেকে রায় সাহেব বাজার মোড় থেকে যানবাহন সদরঘাট অভিমুখে চলাচল বন্ধ থাকলেও বিকালের শিফটে ট্রাফিক পুলিশ এরকম কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এতে করে বিকালের শিফটে শিক্ষার্থীদের বাড়তি ভোগান্তিতে পড়তে হয়। তীব্র যানজটে শাহবাগ, পল্টন ও গুলিস্তান এলাকা থেকে হেঁটে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে হয় ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের। রাস্তায় অতিরিক্ত যাত্রী ও যানবাহনের চাপে তাদের ভোগান্তির শিকার হতে হয়। এতে দুই শিফটে যথাক্রমে সকাল ১০টা ও বিকাল ৩টা পরিক্ষা শুরু হলেও পরিক্ষা শুরু হওয়ার ১ ঘন্টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেখা যায়।


সরেজমিনে দেখা যায়, গুলিস্তান থেকে সদরঘাটগামী গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির দু’পাশে রয়েছে পাইকারি কাপড় ও জুতার দোকান, শপিংমল, লোহা-লক্কড়, প্লাস্টিক, হার্ডওয়্যারের দোকান, দেশের বিভিন্ন স্থানে পণ্য আনা-নেওয়ার পার্সেল প্রতিষ্ঠান। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে ভর্তি পরিক্ষা উপলক্ষে এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের রাস্তায় অবৈধভাবে পন্য উঠা নামা বন্ধ রাখার ব্যবস্থা করা হবে বলা হলেও তার কোন প্রক্রিয়া দেখা যায়নি। এতে করে সরু রাস্তায় ট্রাক, মিনি বাস, রিক্সাসহ বিভিন্ন মাঝারি ও ক্ষুদ্র যান চলাচলে রাস্তায় যানজট আরো প্রকট রুপ ধারন করে।


গাজীপুর থেকে পরিক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থী নুরে আলম বলেন, গাজীপুর থেকে সকাল ১০টায় রওনা দিয়ে বেলা আড়াইটায় গুলিস্তান এসে পৌছাই। এরপর গাড়ি আর চলে না। কোন রকম গাড়ি থেকে নেমে পায়ে হেটে ক্যাম্পাসে আসতে আরো ৪০ মিনিট সময় পর পরীক্ষা শুরু হওয়ার ১০ মিনিট পর হলে প্রবেশ করি। তীব্র গরমে পায়ে হেটে মাথায় তখন কাজ করছিলো না। পরীক্ষার হলে কিছুই ঠিকমতো লিখতে পারিনি। আমার মত অনেকেরই একই অবস্থা হয়েছে।


পরীক্ষা শুরুর ৪০ মিনিট পর হলে প্রবেশ করা এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের পরীক্ষা শেষ করে মেয়েকে নিয়ে শাহবাগ দাঁিড়য়ে থেকে কোন গাড়ি পাইনি। তাই শাহবাগ থেকে হেটে এখানে এসেছি। প্রথমে মনে করেছিলাম পরীক্ষাই দিতে পারবে না। পরে আবার সবাইকে ঢুকতে দিয়েছে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ট্রফিক সমস্যা নিরসনে বাড়তি পদক্ষেপ নেয়া দরকার ছিল।


সার্বিক বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, সকাল থেকেই শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে ট্রফিক পুলিশের সহায়তায় রায় সাহেব বাজার থেকে এদিকে যান চলাচল বন্ধ করে দেই। বিকালের শিফটে সেটা আর সম্ভব হয়নি। এজন্য মানবিক দিক বিবেচনায় কিছুক্ষণ দেরী করে আসা শিক্ষার্থীদেরও ঢুকতে দেয়া হয়েছে। পরবর্তী পরিক্ষা থেকে ট্রফিক ব্যবস্থা আরো ভাল করে দেখা হবে।


এবিষয়ে জানতে কোতয়ালী থানার এসি (ট্রফিক) এর সাথে যোগাযোগ করা যায়নি।



জবি ব্যবসায় অনুষদের ভর্তি পরিক্ষা সম্পন্ন


জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ব্যবসায় অনুষদ (সম্মান) প্রথম বর্ষের ইউনিট-৩ এর ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এবার অনুষদের প্রতি আসনে লড়ছেন ৩৩ জন শিক্ষার্থী। তবে জালিয়তি ঠেকাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে দুই দফায় লিখিতভাবে এই পরীক্ষায় গ্রহন করেন কর্তৃপক্ষ। শনিবার ব্যবসায় অনুষদের প্রথম শিফটের ভর্তি পরীক্ষা সকাল ১০টায় শুরু হয়ে শেষ হয় বেলা ১১.৩০ টায়। দ্বিতীয় শিফটের ভর্তি পরীক্ষা বিকাল ৩টা থেকে ৪.৩০ পর্যন্ত জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও পোগজ ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকালের শিফটে ১০হাজার ১২৬ জন পরীক্ষার্থী ও বিকেলের শিফটে ১০ হাজার ১৮১ জন পরীক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেন। ইউনিট-৩ (ব্যবসায় অনুষদ) এর ৬১০টি আসনের বিপরীতে সর্বমোট ২০ হাজার ৩০৭ জন পরীক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য মনোনীত হয়েছেন। ইউনিট-৩ এর ডীন অধ্যাপক ড. মো. শওকত জাহাঙ্গীর ভর্তি পরীক্ষা সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।


নিরাপত্তার স্বার্থে পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, ঘড়ি ও অন্য যেকোনো ধরনের ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস সঙ্গে রাখা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়। অতিরিক্ত যানজটের কারনে শিক্ষার্থীরা যথাসময়ে আসতে না পারায় নির্দিষ্ট সময়ের পরেও পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের সুযোগ দিয়েছেন প্রশাসন।


বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল পরিদর্শন শেষে জবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই ব্যবসা অনুষদে সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। অনেক শিক্ষার্থী সিটরুম পেতে সমস্যা হয়েছে। তাই যারা পরীক্ষার্থী তাদেরকে পরীক্ষার আগেরদিন সিটরুম দেখে যাওয়া উচিত। ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল দেওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, পরীক্ষার্থীদের খাতা ভালোভাবে মূল্যায়ন করা হবে। এর জন্য যত দিন লাগবে ততদিন পরই ফলাফল প্রকাশ করা হবে। এবারের ভর্তি ফলাফলে কোন পাশ নম্বর নেই। প্রত্যেক পরীক্ষার্থীদের প্রাপ্ত নম্বর অনুযায়ী মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে এবং মেধাতালিকা অনুযায়ী আসন খালি থাকা পর্যন্ত ভর্তি কার্যক্রম চলবে। আগামী পহেলা জানুয়ারী থেকে ক্লাস শুরু হবে।




রিলেটেড নিউজ:


গুরুত্বপূর্ণ সংবাদ:




 শীর্ষ খবর

সবুজ বাংলাদেশ 'চন্দ্রগঞ্জ থানা শাখা'র পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোধন- বিডি টাইমস

লক্ষ্মীপুর কমলনগর উপজেলা একাদশ ক্লাবের ১০১ বিশিষ্ট নতুন কমিটি অনুমোদন।

শিশু রামিমের জন্য মানবিক আবেদন-বিডি টাইমস

মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে মাসব্যাপী ৩০হাজার বৃক্ষরোপণ করবে সবুজ বাংলাদেশ

আড়াই হাজার টাকা করে পাচ্ছে ৫০ লাখ পরিবার

অনলাইন আদালতে জামিন পেলেন ১৪৪ আসামি

ঠাকুরগাঁওয়ে বাড়ী ফিরলেন এক করোনা জয়ী পুলিশ সদস্য

দেশে মৃত্যু বেড়ে ২৫০, আরো ৯৬৯ জন শনাক্ত

ঠাকুরগাঁওয়ে করোনা জয়ীদের ফুলেল শুভেচ্ছা

অনলাইনে আদালত, প্রথম জামিন আবেদন সংগ্রাম সম্পাদকের আবুল আসাদ

করোনা উপসর্গ নিয়ে ওসমানী মেডিকেলের সাবেক পরিচালকের মৃত্যু

যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১২ মামলার আসামি নিহত

নজরদারি বাড়িয়ে লকডাউন শিথিল করুন : ডব্লিউএইচও

১০ দিন হবে ঈদের ছুটি!

ফের শীর্ষ দূষিত বাতাসের শহর ঢাকা




বার্তা প্রধান: রেহমান কামাল
৩০১,ড.নবাব আলী টাওয়ার (৩য় তলা)
পুরানা পল্টন,ঢাকা-১০০০ ,বাংলাদেশ ।


ফোন :  02-7176978  মোবা:  01732-706938
Email :  editor.bdtimes@gmail.com


All Rights Reserved © bd-times.com

This site is developed by -khalid (emdad01557html5css3@gmail.com).

তীব্র যানজটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের নাভিশ্বাস